চোখের দেখাও হতে পারে ভুল - Jibonergolpo.com

চোখের দেখাও হতে পারে ভুল

Jibonergolpo.com

চোখের দেখাও হতে পারে ভুল
                বাদল চৌধুরী

রসূলপুর গায়ের মীর পরিবারের।
বাবা-মা আদরের ছোট্র ছেলে অর্ণব। ছোট বেলা থেকে পাড়ালেখা চিলো সে গভীর মনোযোগী। পরিক্ষার মধ্যে তার ছেয়ে বেশী মার্ক কেউ পেলে। অর্ণব তাকে সব সময় দূষমন ভাবতো। অর্ণবের পড়াখেলার আগ্রহ দেখে তার বাবা মা তাকে। ঢাকা একটি উন্নত কলেজে ভর্তি করিয়ে দেন। নতুন কলেজে শুরুতে আলোড়ন সৃষ্টি করে পেলে অর্ণব।গ্রামের ছেলের এতো ভালো রেজাল্ট দেখে মুগ্ধ কলেজের শিক্ষক শিক্ষীকা সবাই।খুব সহজে অর্ণব আইকোন হয়ে উঠে শহরের ছেলে -মেয়ে গুলোর মাঝে। কলেজের পাকে সবাই অর্ণব কে এদিক সে দিক গুড়তে নিয়ে যেতো। অর্ণব সহজে তাদের বিশ্বাস করে পেলে। কিন্তু সে বিশ্বাসটা যে এমন ভাবে রুপ নিবে। তা কারোই যানা চিলো না। অর্ণবের বন্ধু গুলো তাকে মাধক সেবন করাতে শুধু করে। আস্তে আস্তে নেশায় আশক্ত হয় অর্ণব।দিনের পর দিন কলেজ মিস, সবার সাথে খারাপ আচরণ করতে শুরু করে অর্ণব। সবার চোখে সেরা অর্ণব এখন কলেজের সবার কাছে খারাপ হয়ে উঠে। এক মাত্র তার বিশ্বাসের বন্ধু গুলোর কারণে। কেউ সেটা দড়তে পারে নাই।
কলেজের পিন্সিপাল ব্যাপারটা অর্ণবের বাবা কে জানাই।
তার্ক্ষনীক অর্ণবের বাবা ঢাকায় আসে। কি ছেলের বিচার করবে ছেলের এই অবস্তা দেখে। তিনি কি করবেন ভেবে পায় না, মাধ্যক সেবন করতে করতে অর্ণবের এমর অবস্তা হয়ে চিলো যেটা কল্পনা করার মতো না।
ডাক্তার অর্ণবের বাবাকে বলেছিলো, অর্ণবের অবস্তা বেশী ভালো না।অর্ণবকে কী ভাবে সুস্হ করে তুলবে সে ব্যাপারে চিন্তিতো ডাক্তার।
অবশেষে ডাক্তার অর্ণবের বাবাবে বলেছিলো এই মূহুতে প্রয়োজন তার কাছের লোক গুলো পাশে থাকা। তার শৈশব কালের বন্ধুগুলো যেই ভাবে তাকে  সময় দিতো। ঠিক তেমন ভাবে সময় দেওয়া।এ কথা অর্ণবের মায়ের কাছ থেকে জানতে পারে অর্ণবের সব ছেয়ে।দুষম্ন বন্ধু,প্রিয়া এক সাথে পড়ালেখা করতো অর্ণব আর প্রিয়া। বিদ্যালয় অর্ণবের রোল চিলো দুই প্রিয়ার এক।তাই অর্ণব সব সময় প্রিয়া কে দূষম্ন ভাবতো। কখনো তার সাথে কথা বলতো না।
কিন্তু প্রিয়া কখনো মনে কষ্ট নিতো না। কারণ অর্নব প্রিয়ার চাচাতো ভাই চিলো।এখন পাগলটার অনেকটা বেহাল দশা।প্রিয়া সব ভুলে অর্ণবের পাশে গিয়ে দাঁড়ায়। ডাক্তার এর সহোযোগিতায় ও প্রিয়ার প্রাণ প্রিয়ো প্রচেষ্টায় দিরে দিরে সুস্হ হয়ে উঠে অর্ণব।
(পরে কী হয়েচিলো জানতে হলে অপেক্ষায় থাকুন)

No comments

গল্পটি পড়ার পরে আপনার কোন মতামত থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন....